জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই অংশীদার হতে চায় এলজি

বাংলাদেশের মানুষের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই অংশীদার হতে চায় দক্ষিণ কোরিয়ার ইলেকট্রনিক পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এলজি। এলজি ইলেক্ট্রনিক্ম বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অ্যাডওয়ার্ড কিম এমনটাই জানালেন।
সম্প্রতি প্রথম আলোর সঙ্গে এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে তিনি এলজি বাংলাদেশের বিভিন্ন পণ্য, বাজার মূল্যায়ন, দেশের ব্যবসা পরিবেশসহ নানা বিষয়ে কথা বলেন। তুলে ধরেন এ দেশে এলজির ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা।
অ্যাডওয়ার্ড কিম বলেন, গ্রাহকদের চাহিদার সঙ্গে সমন্বয় রেখে এখানে পণ্য বাজারজাত করছে তাঁর প্রতিষ্ঠান। প্রয়োজন অনুযায়ী নতুন নতুন পণ্য নিয়ে আসবে। গ্রাহকের কথা মাথায় রেখেই তাঁরা চালু করেছেন ‘জীবনটা সুন্দর’ ক্যাম্পেইন।
প্রতিষ্ঠানের সামাজিক কার্যক্রম ও দায়বদ্ধতার কথা মাথায় রেখে গৃহীত নানা কার্যক্রমও তুলে ধরেন এলজির এমডি। সম্প্রতি সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য প্রযুক্তি শিক্ষা নিশ্চিত এবং পরামর্শ নেই যোগ্য বিশ্বনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে যাত্রা শুরু করেছে এলজি আইটি একাডেমি। এ একাডেমি শিশুদের মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিতের পাশাপাশি জ্ঞান-বিজ্ঞানের অন্যান্য বিষয়গুলোও শেখার সুযোগ করে দেবে।
বিস্তারিত দেখুন ভিডিও সাক্ষাৎকারে

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে