প্লেট জেতাটাও খারাপ কী!

ক্রীড়া প্রতিবেদক | আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

কাপে খেলার মূল লক্ষ্যটা পূরণ হয়নি। তবে হতাশা নিয়ে ফিরছে না বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৪ ফুটবল দল। মালয়েশিয়ায় সুপার মক কাপের প্লেট পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জাপানের একটি দলকে হারিয়ে। কাল কুয়ালালামপুরে l ছবি: বাফুফেম্যানচেস্টার সিটির বয়সভিত্তিক দলকে সেমিফাইনালে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৪ ফুটবলাররা। কাল ফাইনালেও বাধা হতে পারেনি জাপানের শোমান বেলমারে দল। ১-০ গোলে জিতে মালয়েশিয়ায় সুপার মক কাপের প্লেট বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে বাংলাদেশ।

এই টুর্নামেন্টের প্লেট বিভাগে বাংলাদেশের এটি টানা দ্বিতীয় শিরোপা। প্রথমটি এসেছিল গত বছর অনূর্ধ্ব-১২ বিভাগে। ওই বছর অনূর্ধ্ব-১৩ বিভাগে রানার্সআপ হয়েছে বাংলাদেশ। তবে প্লেটে চ্যাম্পিয়ন নয়, বাংলাদেশের লক্ষ্যটা থাকে মূল পর্ব অর্থাৎ কাপে খেলা। কিন্তু তিনবার এই টুর্নামেন্টে গিয়ে কখনোই কাপের লড়াইয়ে যাওয়া হয়নি।

কাপ না হোক, প্লেটে তো নিজেদের মেলে ধরতে পেরেছে বাংলাদেশ। এটাই বা কম কী! আসলে বয়সভিত্তিক পর্যায়ে দলগুলোর মধ্যে তেমন বিশাল পার্থক্য খাকে না। যে কারণে গত বছর ব্রাজিলের বিখ্যাত করিন্থিয়ানস ক্লাবের ছোটদেরও হারিয়ে দেয় বাংলাদেশ। কিন্তু এই খুদে ফুটবলাররা যত বড় হতে থাকে, বাংলাদেশের সঙ্গে পার্থক্যটা ততই বড় হয়।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে জাতীয় দল যেখানে সাফল্যহীন, ভুটানের কাছে জাতীয় দলের হার যখন ফুটবলের জন্য বড় এক আঘাত হয়ে এসেছে, ঠিক তখন কিশোর ফুটবলারদের এই সাফল্য একটু হলেও ভালো অনুভূতির।

কুয়ালালামপুর প্যানাসনিক স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ম্যাচ হয়েছে ৭০ মিনিটের। এটি আসলে মালয়েশিয়ার সাবেক তারকা ফুটবলার মকের নামে হচ্ছে। তাতে বাংলাদেশের খুদেরা ভালোই নৈপুণ্য দেখাল। ফাইনালে ৩২ মিনিটে ফাহিম মোরশেদের করা গোলটি বাংলাদেশ দল ধরে রাখতে পেরেছে শেষ পর্যন্ত। সেমিফাইনালেও এই কিশোর করেছিল জোড়া গোল।

কিশোরেরা মূল লক্ষ্যটা পূরণ করতে পারেনি। তবে কোচ পারভেজ বাবু এই সাফল্যেও খুশি, ‘আশা ছিল আমরা কাপ পর্বে খেলব। সেটা সম্ভব না হলে প্লেটে চ্যাম্পিয়ন হব। প্রথমটা না হলেও দ্বিতীয়টি পূরণ করতে পেরে আমরা অবশ্যই খুশি।’

 

পাঠকের মন্তব্য ( ২ )

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে