হাল ছাড়েননি শহীদ–শফিউল

ক্রীড়া প্রতিবেদক | আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

মোহাম্মদ শহীদ, শফিউল ইসলামকদিন আগেও মুখ ভার করে ছিলেন মোহাম্মদ শহীদ। কাল দেখা গেল হাসি ফিরেছে মুখে। বিসিবি একাডেমি ভবনে নিজের রুমে ফেরার পথে বললেন, ‘আমার কিন্তু নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে।’
ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে বিপিএলে ভালো খেলেছেন। আট ম্যাচে ১৫ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্টে শীর্ষ উইকেটশিকারি হওয়ার দৌড়ে যখন বেশ এগিয়ে, তখনই তাঁকে ছিটকে দেয় লিগামেন্টের চোট। চিকিৎসা শেষে বিসিবির ফিজিও বায়েজিদুল ইসলামের অধীনে শহীদের এখন পুনর্বাসন চলছে। চোট কাটিয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়ার ব্যাপারে শহীদ বেশ আত্মবিশ্বাসী, ‘দ্রুতই সেরে উঠছি। তিন দিন আগে পুনর্বাসন শুরু হয়েছে। আজ (কাল) জিমে সাইক্লিং করেছি। এক সপ্তাহ পর বোলিং শুরু করব। যদি পুরো সেরে উঠতে পারি ২৫-২৬ তারিখে রওনা দেওয়াটা অসম্ভব নয়।’
তবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শহীদ সেরে উঠতে পারবেন কি না পরিষ্কার বলতে পারছেন না ফিজিও বায়েজিদ, ‘কবে সে পুরোপুরি ফিট হবে নির্দিষ্ট করে বলা কঠিন। এটা আসলে খেলোয়াড়ের ওপর নির্ভর করে।’ ওভারের পর ওভার জায়গামতো বোলিং করতে পারা শহীদের মূল শক্তি। গত বছর পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সেটি দেখিয়েছেন এই ডানহাতি পেসার। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলছেন, তিনি যদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সেরে উঠতে পারেন, তাঁকে বিবেচনা করা হতে পারে ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে, ‘২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে তার রিপোর্ট পাওয়ার কথা। রিপোর্ট যদি ইতিবাচক হয়, আমরা বিবেচনা করব।’
বিপিএলে চোটে পড়া আরেক পেসার শফিউল ইসলামের পুনর্বাসন-প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে কাল। প্রথম দিন হালকা ব্যায়াম করেছেন। খুলনা টাইটানসের হয়ে ১৩ ম্যাচে ১৮ উইকেট নিয়ে যখন কিউইদের বিপক্ষে অসাধারণ কিছুর স্বপ্ন দেখছেন শফিউল, তখনই পান চোটের আঘাত। তবে শহীদের মতোই হাল ছাড়ছেন না শফিউলও, ‘আশা না থাকলে এগোব কীভাবে? আমি আমার কাজটা ঠিকঠাক করার চেষ্টা করব। বাকিটা সময় বলে দেবে।’
মিনহাজুল আগেই জানিয়েছেন, টেস্টের আগে শফিউল সেরে উঠতে পারলে তাঁকে বিবেচনা করা হবে। তবে শহীদ-শফিউল কাউকে নিয়েই তাড়াহুড়ো করতে চান না প্রধান নির্বাচক, ‘টেস্টের আগে শফিউলের সেরে ওঠার সম্ভাবনাটা বেশি। হ্যামস্ট্রিং সারতে সাধারণত দুই-আড়াই সপ্তাহ লাগে। তবে দুজনই আমাদের গুরুত্বপূর্ণ বোলার। তাড়াহুড়ো করা ঠিক হবে না। ফিজিও-চিকিৎসকের রিপোর্ট দেখে তবেই আমরা সিদ্ধান্ত নেব।’

 

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে