যুব এশিয়া কাপ ক্রিকেট

লক্ষ্য অভিজ্ঞতা অর্জন

ক্রীড়া প্রতিবেদক | আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

কোচ ও ম্যানেজারের সঙ্গে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান। কাল মিরপুরের সংবাদ সম্মেলনে l প্রথম আলো‘বি’ গ্রুপের তিন প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও সিঙ্গাপুর। তবে বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে শুধু দেশের নাম শুনে প্রতিপক্ষের শক্তি অনুমান করা বোকামি। যুব এশিয়া কাপে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান সে বোকামি করছেনও না। আগেই বলে দিলেন, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ের ক্রিকেটে সব দলই সমান।’
যুব এশিয়া কাপ খেলতে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল শ্রীলঙ্কা যাবে কাল। কলম্বো ও গলে ১৪ ডিসেম্বর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, পরদিন দুই ভেন্যুতে একই সঙ্গে শুরু হবে টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ যুব দলের জন্য এটি মূলত নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি। অভিজ্ঞতা অর্জনের সফর। মিরপুরে কাল সফর-পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক সাইফও বললেন, ‘অভিজ্ঞতা অর্জনই আমাদের লক্ষ্য। এই অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে কাজে দেবে।’ দলের কোচ আবদুল করিম ও ম্যানেজার হিসেবে যাচ্ছেন জুনিয়র নির্বাচক এহসানুল হক।
বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের এ বছর এটাই প্রথম সফর। অভিজ্ঞতায় তাই অনেকটাই পিছিয়ে খেলোয়াড়েরা। অধিনায়কের ভাষায়, ‘গত বছরের দলের চেয়ে এবারের দল একটা দিক দিয়েই পিছিয়ে, অভিজ্ঞতা। আশা করি, এশিয়া কাপে সেটা হয়ে যাবে।’

সাইফের দলে আগের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটার আছেন মাত্র দুজন। তিনি নিজে এবং পেসার আবদুল হালিম। হালিমকে নিয়ে এশিয়া কাপের দলে চারজন বিশেষজ্ঞ পেসার, ছয়জন বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান। একজন বাঁহাতি স্পিনার ও একজন অফ স্পিনার। নির্বাচক এহসানুল দলটাকে ভারসাম্যপূর্ণই মনে করছেন। অধিনায়কও তাই, ‘আমাদের দলটা বেশ ভারসাম্যপূর্ণ। অনূর্ধ্ব-১৭ দল থেকে সবাই একসঙ্গে খেলেছি। বোঝাপড়া খুব ভালো, আমাদের প্রস্তুতিও ভালো হয়েছে। তিন-চার মাস একসঙ্গে অনুশীলন করেছি, প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি।’

‘এ’ গ্রুপের চার দল স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা, ভারত, নেপাল ও মালয়েশিয়া। দুই গ্রুপের শীর্ষ দুই দল উঠবে দিবারাত্রির সেমিফাইনালে, দিবারাত্রির ফাইনাল ২৩ নভেম্বর। কৃত্রিম আলোর নিচে খেলতে অভ্যস্ত হতে গত দুই দিন মিরপুরে ফ্লাডলাইটের নিচে অনুশীলন করেছেন যুবারা। আজও তাই হওয়ার কথা।

এশিয়া কাপ সামনে রেখে আসিফের দল গত আগস্ট থেকে কক্সবাজার, বিকেএসপি ও মিরপুরে অনুশীলন করেছে। কোচ আবদুল করিম জানিয়েছেন, খেলোয়াড়দের অভ্যস্ততা গড়ে তুলতে অনুশীলনের উইকেটগুলো শ্রীলঙ্কার উইকেটের মতো করে বানানোর চেষ্টা করা হয়েছে। প্রস্তুতিও সন্তোষজনক মনে করছেন তিনি।

 

 

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে