বার্সায় হতে পারত মেসি-রোনালদো জুটি!

অনলাইন ডেস্ক | আপডেট:

আজ তাঁরা দুজন খেলতে পারতেন বার্সেলোনাতেই! ফাইল ছবিআগামীকালই বহু আকাঙ্ক্ষিত এল ক্লাসিকো। ন্যু ক্যাম্পে কাল বার্সেলোনার দুশ্চিন্তার মূল কারণ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। গত এল ক্লাসিকোতেই রিয়াল মাদ্রিদের জয় সূচক গোলটি ছিল তাঁর। অথচ দুর্দম্য এই ফরোয়ার্ড আজ হতে পারতেন রিয়াল মাদ্রিদের দুশ্চিন্তার কারণ। লিওনেল মেসির সঙ্গে জুটি বেধে আজ ত্রাস ছড়াতেন রিয়ালের রক্ষণে। কিন্তু বার্সেলোনা সভাপতির ভুলে তা আর হয়নি।
পর্তুগিজ তারকাকে এক সময় অল্প মূল্যে দলে ভেড়ানোর সুযোগ হেলায় হারিয়েছে বার্সা। রোনালদো তখন স্পোর্টিং ক্লাব ডি পর্তুগালের হয়ে আলো ছড়াচ্ছেন। ইউরোপের বড় বড় ক্লাবগুলোর চোখ ছিল তাঁর ওপর। বার্সেলোনাও ছিল সে দলে।
২০০৩ সালে সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর বার্সাকে নতুন করে সাজানোর উদ্যোগ নেন হুয়ান লাপোর্তা। তারই অংশ হিসেবে দলে ভিড়িয়েছিলেন রোনালদিনহো, রাফায়েল মার্কেজকে। সেই সময়ে ১৮ বছর বয়সী রোনালদোর প্রতিভাও মুগ্ধ করেছিল লাপোর্তাকে। তবে তাঁকে পেতে বার্সেলোনাকে খরচ করতে হতো ১ কোটি ৭০ লাখ ইউরো। সেই সময়ে কাতালান ক্লাবটি রোনালদোর জন্য এই অর্থ খরচ করতে রাজি হয়নি।
অ্যালেক্স ফার্গুসন অবশ্য ভুল করেননি। আরও ২০ লাখ ইউরো বেশি খরচ করে ২০০৩ সালে রোনালদোকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে দলে ভেড়ান তিনি। স্পেনের ক্রীড়া দৈনিক এএসে লাপোর্তা জানালেন রোনালদোকে চুক্তিবদ্ধ করতে না পারার আক্ষেপের গল্প, ‘আমরা যখন বার্সেলোনার প্রশাসনে আসি তখন রোনালদিনহো, মার্কেজ আর রিকার্ডো কারেসমাকে চুক্তিবদ্ধ করেছিলাম। আমরা নতুন করে দলটি সাজাচ্ছিলাম। ক্রিস্টিয়ানো স্পোর্টিং সিপিতে ছিল আর সে ইউনাইটেডের সঙ্গে প্রায় চুক্তি করে ফেলেছিল।’
বার্সেলোনায় যোগ দেওয়া মার্কেজ আর কারেসমার এজেন্ট ছিলেন হোর্হে মেন্ডেজ। এই পর্তুগিজ রোনালদোরও এজেন্ট হোর্হে মেন্ডেজ। লাপোর্তাকে রোনালদোর খবরটি তিনিই দিয়েছিলেন, ‘আমরা বলেছিলাম আমরা রোনালদোর ব্যাপারে জানি। সে (হোর্হে) ইউনাইটেডের চেয়ে আমাদের ২০ লাখ ইউরো কম প্রস্তাব করেছিল। পরে ইউনাইটেড ১ কোটি ৯০ লাখ ইউরোতে রোনালদোকে নিয়ে নিয়েছিল।’
ইউনাইটেডের হয়ে রোনালদো প্রায় তিনশ’ ম্যাচ খেলে ১১৮টি গোল করেন। এর পর তিনি নাম লেখান রিয়ালে। ট্রান্সফার ফির বিশ্ব রেকর্ড (৯ কোটি ৪০ লাখ ইউরো) গড়ে ২০০৯ সালে তাঁকে দলে ভিড়িয়েছে বার্সেলোনার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। তাতেই মেসি-রোনালদো স্বপ্নের জুটিটা আর দেখা হলো না ফুটবল বিশ্বের।

 

পাঠকের মন্তব্য ( ১ )

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে