সব

বিচিত্র

টুইটে মিটল শিশুর ক্ষুধা

বিবিসি
প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের রেল মন্ত্রণালয়ের কাজটা বিস্তর বাহবা পেয়েছে। সামাজিক যোগাযোগের অনলাইন মাধ্যমে লোকজন প্রশংসার বন্যা বইয়ে দিচ্ছে। ঘটনাটা কী? ট্রেনে ক্ষুধার্ত একটা শিশুর কাছে তাৎক্ষণিকভাবে দুধ পৌঁছে দিয়েছিল রেল বিভাগ। কর্তৃপক্ষ টুইটারে ওই শিশুটির দুরবস্থার খবর পেয়েছিল।

আনাগা নিকাম নামের এক নারী গত রোববার রেলগাড়িতে চড়েছিলেন। একসময় দেখলেন, একজন মা তাঁর শিশুকন্যার জন্য অন্য যাত্রীদের কাছে দুধ চাইছেন। আনাগা তখন রেল মন্ত্রণালয়ের টুইটার অ্যাকাউন্টে ব্যাপারটা লিখে সাহায্য চাইলেন। ট্রেনটি তখন মহারাষ্ট্র রাজ্যে।

টুইটারে ভারতীয় রেল মন্ত্রণালয় খুবই তৎপর। বিপর্যস্ত অনেক যাত্রীকে সাহায্য করে তারা আগেও দৃষ্টান্ত গড়েছে। আনাগার টুইটারবার্তা পেয়ে মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ কঙ্কণ রেলওয়ে, ভারতীয় রেলের একটি বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তারা পরের স্টেশনেই ওই ট্রেনযাত্রী শিশুটির কাছে দুধ পৌঁছে দেয়। ঘটনাটি গতকাল বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ টুইটারে প্রকাশ করলে বিশদভাবে জানাজানি হয়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস লিখেছে, পাঁচ মাস বয়সী শিশুটি তিরুনেলভেলি-হাপা এক্সপ্রেসের সাধারণ কামরায় মা-বাবার সঙ্গে যাচ্ছিল। রেল কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিক সাড়া না দিলে হয়তো তাকে খালি পেটেই পুরোটা পথ যেতে হতো। কারণ, মা-বাবা তার জন্য যে দুধ বাড়ি থেকে বানিয়ে সঙ্গে নিয়েছিলেন, সেটা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। পরবর্তী বড় যাত্রাবিরতির স্টেশন রত্নগিরি তখনো অনেক দূরের পথ। তাই ওই তরুণ দম্পতি অসহায় বোধ করছিলেন। তখন সহযাত্রী আনাগা ওই শিশুর একটি ছবি তুলে টুইটারে প্রকাশ করে সাহায্যবার্তা পাঠান। সেই সঙ্গে ট্রেনের নম্বর, অবস্থান ও বিস্তারিত বিবরণও লিখে দেন। কর্তৃপক্ষের দ্রুত হস্তক্ষেপে সমাধান হয়ে যায়। টুইটে মেটে শিশুর ক্ষুধা।

 

যন্ত্রের ভয়ে নতুন মানবাধিকার?

যন্ত্রের ভয়ে নতুন মানবাধিকার?

১২ বছর বয়সে গাড়িতে ১৩০০ কিমি পাড়ি!

১২ বছর বয়সে গাড়িতে ১৩০০ কিমি পাড়ি!

৫ গাড়ির যন্ত্রাংশ দিয়ে লিমোজিন!

৫ গাড়ির যন্ত্রাংশ দিয়ে লিমোজিন!

বিজ্ঞানের জন্য ৫০০ শহরে মিছিল

বিজ্ঞানের জন্য ৫০০ শহরে মিছিল

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

জন্ম যদি বঙ্গে তব...

কবিদের বাড়ি জন্ম যদি বঙ্গে তব...

প্রথম আলো বন্ধুসভায় এ সংখ্যায় ছাপা হলো কয়েকজন কবির বাড়ি নিয়ে ফিচার। মাইকেল...
মনিরুজ্জামান
বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি

বরিশালের আলপথ, অলিগলি, নদীর পাড়ে হাঁটতেন জীবনানন্দ দাশ। কর্মজীবনও কাটিয়েছেন...
ফারজানা আক্তার
তুমি যাবে ভাই যাবে মোর সাথে

তুমি যাবে ভাই যাবে মোর সাথে

সড়কে, বাড়ির দেয়ালে, প্রচ্ছদ চিত্রকর্ম দিয়ে সুসজ্জিত অবস্থায় দেখে আপনার মনে...
সুজীৎ কুমার দাস
বাংলার মাটি দুর্জয় খাঁটি

বাংলার মাটি দুর্জয় খাঁটি

সাম্যের কবি চিরতারুণ্যের কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের বাড়ি আমরা দেখে আসতে পারি...
দিগন্ত বৈদ্য
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info