গৃহস্থালি

সহজে করি ঘরের কাজ

অধুনাপ্রতিবেদক | আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

জীবনযাপনকে সহজ করতে পাওয়া যায় নানা জিনিস। মডেল: শৈলী। ছবি: অধুনাবাড়িতে কাজের লোক নেই। এদিকে ঘর ঝাড়া-মোছা, রান্নাবান্না, থালা-বাটি ধোয়া, দা-বঁটিতে কাটাকাটি কিংবা শিল-পাটাতে বাটাবাটি তো থেমে নেই। ঘরে-বাইরে কাজ করতে গিয়ে কোমরের ব্যথাটা বেড়েই চলেছে। আর জীবনযাপনকে সহজ করতে বাজারেও পাওয়া যায় নানা রকমের জিনিস। আমাদের প্রয়োজন শুধু সুবিধা গ্রহণের ইচ্ছা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমাদের শরীরের কাঠামোর সঙ্গে মাংসপেশির ভারসাম্য রয়েছে। একটানা কাজে কিংবা শরীরের ভারসাম্য ঠিক থাকে না, এমন কোনো অবস্থানে দীর্ঘক্ষণ থাকলে ঘাড়, পিঠ, কোমর এমনকি হাঁটুতেও ব্যথা অনুভূত হতে পারে। এটি যদি দীর্ঘ সময়ের হয়, তাহলে শরীরের জন্য ভালো নয়। ছোট-বড় সব বয়সী ব্যক্তিকেই তাই কাজের সময় শরীরের স্বাভাবিক ভারসাম্যের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিষয়টি বোঝা খুব সহজ। আপনি যে অবস্থানে থেকে কাজ করতে কোনোরূপ সমস্যা বোধ করছেন না, সেটিই হলো আপনার সেই কাজের সঠিক অবস্থান।’

ঘরের কাজ করার ক্ষেত্রে অধিকাংশ সময় আমরা নুয়ে ও সামনের দিকে ঝুঁকে কাজ করি।ঘর মুছতে মবসম্ভব হলে আজ থেকেই বদলে দিন কাজের অভ্যাস। বসে রান্না না করে রান্নাঘরের চুলাটি দাঁড়িয়ে রান্না করার উপযোগী করে নিন। দা-বঁটিতে কাটার সনাতনী অভ্যাস ভুলে গিয়ে কোমর-উচ্চতায় চপিং বোর্ডে ছুরি ও কাটারের সাহায্যে কাটাকুটির অভ্যাস গড়ে তুলুন। থালা-বাটি ধোয়ার জন্য ব্যবহার করুন উঁচু সিঙ্ক। ঘর ধোয়া-মোছার কাজটি হাতলসহ সুতা কিংবা স্পঞ্জের মব ব্যবহার করে করতে পারেন দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে।

ঘর ঝাড়াও সহজ করে নিন লম্বা হাতলওয়ালা ঝাড়ুর সাহায্যে। ময়লা তুলতে নিচের দিকে ঝোঁকার দরকার নেই, ব্যবহার করুন লম্বা হাতলের বেলচা। টয়লেট পরিষ্কার করাও কঠিন কিছু নয়, যদি থাকে একটি লম্বা হাতলের ব্রাশ ও পানি টানার উইপার। এ সবকিছু পাবেন আপনার হাতের কাছের যেকোনো সুপার শপেই। অথবা সময় করে চলে আসতে পারেন নিউমার্কেটে। এখানে লম্বা হাতলের ঝাড়ু ও বেলচার সেট পাবেন ৫২০ টাকায়। চাইলে আলাদাও কিনতে পারেন। ঘর মোছার সুতার ফ্লোর মব পাবেন ২৫০ টাকায়, কাপড়ের তৈরি মব ২২০ টাকায় এবং ফোমের মব ৩০০ টাকায়। পানি টানার উইপার ১৮০ টাকায়। হাতল ব্রাশ ১৫০ টাকায়। রান্নাঘরের জন্য কাটিং ও চপিং বোর্ড ছোট-বড় ১৮০ থেকে ৩২০ টাকায়। ছুরি ৪০ থেকে ১৫০ টাকায়। রান্নাঘরের সিঙ্ক খুঁজতে ঢাকার হাতিরপুলের স্যানিটারি দোকানগুলোয় ঘুরে যেতে পারেন। এখানে দেশে তৈরি সিঙ্গেল বোল সিঙ্ক পাবেন এক হাজার ২০০ থেকে এক হাজার ৫০০ টাকায়। দেশের বাইরে থেকে আমদানি করা সিঙ্গেল বোল সিঙ্ক পাবেন তিন হাজার ৮৫০ থেকে চার হাজার ৫০০ টাকায় এবং ডাবল বোল সিঙ্ক পাঁচ হাজার ৫০০ থেকে আট হাজার ৫০০ টাকায়।

লক্ষ রাখুন
ঘরের কাজ যথাসম্ভব দাঁড়িয়ে করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।
দীর্ঘ সময় ধরে কোনো কাজ না করে কিছু সময় পর পর বিরতি নিয়ে নিন।

l সুস্থ-স্বাভাবিক থাকতে হাঁটাচলার বিকল্প নেই।

l         ব্যথার তীব্রতা বেশি হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোনঃ ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্সঃ ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইলঃ info@prothom-alo.info
 
topউপরে