সংঘাত এড়াতে জর্জিয়া থেকে ব্যবসা গোটাচ্ছেন হবু প্রেসিডেন্ট

জামাইকে উপদেষ্টা করছেন ট্রাম্প

রয়টার্স | আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প ও মেয়ে জামাই জেরাড কুশনারের সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প l রয়টার্সমেয়ের জামাই জেরাড কুশনারকে হোয়াইট হাউসের অন্যতম জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা মনোনীত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের হবু প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ পদের জন্য নিজের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে পদত্যাগ করবেন কুশনার। ডেমোক্রেটিক পার্টি ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছে।
হোয়াইট হাউসের পদে জেরাড কুশনার একই সঙ্গে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও পররাষ্ট্রনীতি নির্ধারণে, বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে কাজ করবেন বলে জানা গেছে।
প্রেসিডেন্টের নিজের পরিবারের কারও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগ পাওয়ার নজির যুক্তরাষ্ট্রে খুব একটা নেই। ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা হয়েছে ডেমোক্রেটিক পার্টিসহ বিভিন্ন মহল থেকে। স্বজনপ্রীতি আইনের উল্লেখ করে এই নিয়োগ তাঁর সঙ্গে সংগতিপূর্ণ কি না, তা খতিয়ে দেখার আহ্বান জানিয়েছেন ডেমোক্র্যাটরা।
জামাইকে নিয়োগ দেওয়ার ব্যাপারে গত সোমবার নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে এক বার্তায় ট্রাম্প বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা এবং ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ার সময় কুশনার ‘বিশ্বস্ত পরামর্শক এবং দারুণ সম্পদ’ হিসেবে ভূমিকা রেখেছেন। আজ বুধবার সংবাদ সম্মেলন করবেন ট্রাম্প। নিজ মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এবং পরিবারের লোকজনের সরকারি পদে আসার ফলে স্বার্থের সংঘাত এড়ানোর বিষয়টি হয়তো এই সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরবেন তিনি।
প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণার সময় ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কার স্বামী কুশনার ট্রাম্পের নির্বাচনী শিবিরের নীতিনির্ধারণে অন্যতম প্রধান ভূমিকা পালন করেন। ৩৫ বছর বয়সী কুশনার নিজেও একজন আবাসন ব্যবসায়ী।
যুক্তরাষ্ট্রে মন্ত্রিসভার মতো হোয়াইট হাউসের ওই পদে মনোনীত ব্যক্তির নিয়োগের জন্য সিনেটের অনুমোদন বাধ্যতামূলক নয়। জেরাড কুশনার ওই পদের জন্য বেতনও পাবেন না। তবে তাঁর নিয়োগে আইনের ব্যত্যয় হয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখার জন্য কংগ্রেসের নৈতিকতাবিষয়ক কমিটিকে অনুরোধ করেছেন ডেমোক্র্যাটরা।
যুক্তরাষ্ট্রের ১৯৬৭ সালের এ-সংক্রান্ত আইনে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট কোনো আত্মীয়কে মন্ত্রী বানাতে পারবেন না। কিন্তু উপদেষ্টার মতো মন্ত্রিসভার বাইরের কোনো পদের ক্ষেত্রে আইনটি খাটবে কি না, তা পরিষ্কার নয়। ট্রাম্পের সহযোগীরা বলছেন, হোয়াইট হাউসের কোনো পদের ক্ষেত্রে স্বজনপ্রীতিবিষয়ক আইন প্রয়োগ করা যায় না।
বিনিয়োগ তুলে নিলেন ট্রাম্প
রয়টার্স জানিয়েছে, সাবেক সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র জর্জিয়ার এক আবাসন ব্যবসা থেকে ২৫ লাখ ডলারের অংশীদারত্ব তুলে নিচ্ছে ট্রাম্প অর্গানাইজেশন। ওই ব্যবসার অন্যান্য অংশীদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বলা হয়েছে, ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর যাতে স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন না ওঠে, সে জন্যই ওই ব্যবসা থেকে সরে যাচ্ছেন তিনি।
অবশ্য এ বিষয় নিয়ে ট্রাম্প অর্গানাইজেশন কিংবা তাঁর ক্ষমতা হস্তান্তর দলের কেউ মন্তব্য করতে রাজি হননি।
ট্রাম্প-মেরিল স্ট্রিপ বাদানুবাদ
বিনোদনজগতের বড় আয়োজন গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসে নাম না উল্লেখ করে ট্রাম্পকে ধুয়ে দিয়েছিলেন অস্কারজয়ী হলিউড অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ। এক শারীরিক প্রতিবন্ধী সাংবাদিকদের অঙ্গভঙ্গি অনুকরণ করে তাঁকে বিদ্রূপ করার জন্য ট্রাম্পকে এক হাত নিয়েছিলেন স্ট্রিপ। টুইটারে পাল্টা জবাব দিয়ে স্ট্রিপকে ‘ওভাররেটেড’ (যোগ্যতার চেয়ে বেশি দাম পাওয়া) অভিনেত্রী আখ্যা দেন। ট্রাম্পের ভাষ্য, মেরিল স্ট্রিপ হিলারি ক্লিনটনের ‘চামচা’, নির্বাচনে যাঁর ভরাডুবি হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য ( ১ )

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে