তারকাদের গ্রাম—ইনস্টাগ্রাম!

আপডেট: | প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি দেওয়ার সামাজিক মাধ্যম ‘ইনস্টাগ্রাম’। সবার মতো তারকাদের কাছেও জনপ্রিয় এই মাধ্যমটি। তাঁদের নিত্যদিনের কর্মকাণ্ডের ছবির দেখা মেলে এই ভার্চ্যুয়াল ‘গ্রামে’। ইনস্টাগ্রাম নিয়ে তারকাদের ব্যস্ততার গল্পই শোনাচ্ছেন শফিক আল মামুন

 

.ব্যায়াম করছেন নায়িকা। তাঁর ওজন কমেছে ৫ কেজি! ছবিসহ এমন খবর ছড়িয়ে গেছে। কিংবা নায়ককে আজ কোনো ভক্ত এক তোড়া গোলাপ পাঠিয়েছে। সেই গোলাপের রং কেমন, তা-ও জানেন গ্রামবাসী। কোন সেই গ্রাম, জানেন? সেই গ্রাম থাকে সবার পকেটে পকেটে, মুঠোফোনে। সেই গ্রামের পুরো নাম ‘ইনস্টাগ্রাম’। ছবি দেওয়ার এই সামাজিক মাধ্যমটি দিন দিন হয়ে উঠছে জনপ্রিয়। ফেসবুকে একের পর এক ইস্যুর চাপে যখন স্ট্যাটাস দিয়ে কথায় কথা বেড়েই যাচ্ছে, তখন ইনস্টাগ্রামে একটা ছবিই বলে দিচ্ছে অনেক অব্যক্ত কথা। বিশেষ করে তারকাদের বেলায় ছবির সেই কথাগুলো যেন আরও প্রাণ পাচ্ছে। এত দিন হলিউড কিংবা বলিউড তারকাদের ইনস্টাগ্রামে মাতামাতি নিয়েই কথা হতো খুব। তবে আজকাল বাংলাদেশের তারকারাও এ মাধ্যমে সরব। তাঁদের নিত্যনতুন দেখা-অদেখা রূপ এই ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ পাচ্ছে। তাই চলুন আজ এই গ্রামে তারকাদের আনাগোনা নিয়ে একটু কথা হয়ে যাক।
.
আগে বিনোদনজগতের তারকাদের ফেসবুকে বেশ ব্যস্ত থাকতে দেখা যেত। এখনো তাঁরা ফেসবুকে থাকেন। তবে তাঁদের কোনো ছবি ফেসবুকে দেখা গেলে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তাঁর ওপর ‘ইনস্টাগ্রাম’ লেখাটি চোখে পড়ে। কারণ তাঁরা ছবিটি মূলত দেন সেইখানেই। অভিনয়শিল্পী নুসরাত ফারিয়া, বিদ্যা সিনহা মিম, মোশাররফ করিম, পরীমনি, আরিফিন শুভ, সংগীতশিল্পী তাহসান, বর্ষা, পড়শী, হৃদয় খান, ইমরান, মিনার, ছোট পর্দার শিল্পী ঈশিকা খান, পিয়া বিপাশা, শবনম ফারিয়া, শ্রাবণ্য তৌহিদা, বেনজির ইসরাত, টয়া, নওশিন, এলভিন, জোভান, তৌসিফসহ অনেকেই তাঁদের দিনের প্রতি মিনিট আর ঘণ্টার জীবনচিত্র সেই মাধ্যমে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেন।
.তাহসান
অনুসারীর সংখ্যা: প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ
‘হঠাৎ করে কয়েক বছরে ফেসবুকে নেতিবাচক বিষয় নিয়ে তর্ক-বিতর্কটা বেড়ে গেছে। এ কারণে এখন আর ফেসবুক ভালো লাগে না। ইনস্টাগ্রাম এখনো অনেকটা পরিশীলিত। তাই এখানেই বেশি ব্যস্ত থাকতে ভালো লাগে।’

নুসরাত ফারিয়া
অনুসারী সংখ্যা: প্রায় সাড়ে সাত লাখ
‘সামাজিক যোগাযোগের সব মাধ্যমেই আমার উপস্থিতি আছে। তবে ইনস্টাগ্রামে আমার ভক্তের সংখ্যা বেশি। তা ছাড়া এখানে কোনো লেখালেখির কাজ নেই। সেটাও এ মাধ্যমের একটা আকর্ষণীয় বিষয়।

.মিম
অনুসারীর সংখ্যা: সাড়ে ছয় লাখ
‘ইনস্টাগ্রামে স্ট্যাটাস বলে কিছু নেই। এখানে শুধুই ছবি দেওয়া যায়। যখন যেভাবে থাকি, নিজের ছবি বা অন্য কিছুর ছবি দিয়ে ভক্তদের সঙ্গে মুহূর্তগুলো ভাগাভাগি করতে পারি। এই মাধ্যমের মজাটাই অন্য রকমের।’

শুভ
অনুসারীর সংখ্যা: প্রায় তিন লাখ
‘এখন সামাজিক মাধ্যমে থাকাটা একজন শিল্পীর জীবনের খুব স্বাভাবিক অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিনোদনজগতের মানুষদের কাছে স্বাচ্ছন্দ্যের দিক থেকে ইনস্টাগ্রামটা একটু বেশিই এগিয়ে। খুব সহজে ভক্তদের নিজের কথাগুলো জানিয়ে দেওয়া যায়। শুধু ছবি তুললেই হয়। কোনো কিছু লেখার প্রয়োজন হয় না।’

পড়শী
অনুসারীর সংখ্যা: প্রায় সাড়ে চার লাখ
‘ফেসবুক কিংবা টুইটারের চেয়ে ইনস্টাগ্রাম বেশি আধুনিক লাগে আমার কাছে। শুধু গানের জন্য নয়, একজন শিল্পীর ব্যক্তিজীবনের প্রতিটি মুহূর্ত জানতে চান ভক্তরা। তাই যেখানে, যেভাবেই থাকি না কেন, প্রিয় মুহূর্তের ছবিগুলো এখানে দিতে ভালোই লাগে।’

 .

 

 

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনি কি পরিচয় গোপন রাখতে চান
আমি প্রথম আলোর নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

View Mobile Site
   
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ই-মেইল: info@prothom-alo.info
 
topউপরে