সব

ঢাকা লিট ফেস্ট

‘সীমানাগুলো মাথায়’

প্রণব ভৌমিক
প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলা একাডেমিতে ঢাকা লিট ফেস্ট-এর শেষ দিনে কবিতা পড়ছেন কবি নির্মলেন্দু গ্ুণ, পাশে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের অনুবাদক চিন্ময় গুহ ও কবি মুহাম্মদ নূরুল হুদা l প্রথম আলোবছর তিনেক আগে দিল্লির গণধর্ষণের ঘটনার কথা কি মনে আছে? ঘটনার পর ভারতজুড়ে যে প্রতিবাদের ঢেউ উঠেছিল, সেটি স্পর্শ করেছিল বাংলাদেশকেও। এর ওপর লেসলি আডউইন নির্মাণ করেন প্রামাণ্যচিত্র ইন্ডিয়া’স ডটার। এ বছর মার্চে মুক্তির পর ভারত সরকার ছবিটির প্রদর্শন বন্ধ করে দেয়।
লন্ডননিবাসী লেসলি আডউইনের সে ছবি দেখিয়েই গতকাল ঢাকা লিট ফেস্টের সমাপনী দিন শুরু হয়। পরে দুটি অধিবেশনে ছবির ওপর কথা বলেন এর নির্মাতা। লেসলি বলেন, ভারত সরকার ছবিটি নিষিদ্ধ করার পর সেখানকার নারীবাদীদের একাংশও ছবির সমালোচনা করেন। এ সময় তাঁদের একজন, উর্বশী বুটালিয়াও ছিলেন দর্শকসারিতে। লেসলি বলেন, সবাই ইউটিউবে ছবিটির বিবিসি সংস্করণ দেখে প্রশ্ন তুলেছেন, ছবিতে কেন শুধু ভারতের চিত্র? কেন নারীর ওপর সহিংসতার বিশ্ব পরিস্থিতি নেই? কিন্তু ছবির আন্তর্জাতিক সংস্করণে সেসব তথ্য আছে। আসল ছবিটি না দেখেই অনেকে সমালোচনা করছেন।
চলচ্চিত্র নির্মাতা দিনা হোসেন প্রশ্ন করেন, কেন ছবিতে শুধু ধর্ষণের কথা বেশি এসেছে, এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদের কথা আসেনি। উত্তরে লেসলি বলেন, সম্মিলিত প্রতিবাদ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই ছবিটির নির্মাণ, ছবিতে সে প্রতিবাদের কথা আছেও, কিন্তু তিনি আসলে মেয়েটির গল্প বলতে চেয়েছেন। ঘটনার পর ভারতীয় গণমাধ্যম ‘নির্ভয়া’, ‘দামিনী’সহ বিভিন্ন নামে মেয়েটিকে ডেকেছে, মাতাপিতা আশা ও বদ্রীনাথ সিং-এর অনুমতিতে লেসলি ছবির আন্তর্জাতিক সংস্করণে প্রকাশ করেন এ ‘ভারতকন্যা’র নাম, জ্যোতি সিং।
লেসলি বলেন, তিনি ঘটনার পর গণমাধ্যমে ধর্ষকদের আসুরিক উপস্থাপনা দেখেছিলেন। কিন্তু যখন তাঁদের সাক্ষাৎকার নিলেন, তখন দেখা গেল তাঁরা আসলে খুবই দরিদ্র সাধারণ মানুষ। পিতৃতান্ত্রিক সমাজ তাঁদের শিখিয়েছে, নারী তাঁদের সমান নয়। এটা সমস্ত বিশ্বজুড়ে। কোনো রাজনৈতিক সীমারেখা এ মানসিকতাকে রুখতে পারেনি। লেসলি মনে করেন, একই কারণে সিরিয়ায় সাধারণ মানুষ আজ মারা যাচ্ছে। অপরের প্রতি শ্রদ্ধার অভাবে এটা হচ্ছে, কখনো এই ‘অপর’ নারী, কখনো ‘দরিদ্র অসহায়’ মানুষ। এর কারণ, শিশুদের এখন অক্ষরজ্ঞান ও সংখ্যাতত্ত্ব শেখানো হচ্ছে। তাঁদের অপরের প্রতি শ্রদ্ধা, সাম্য, মর্যাদা প্রদর্শনের ব্যাপারগুলো শেখানো হচ্ছে না।
এ ছবি লেসলি আডউইনের জীবন বদলে দিয়েছে। নতুন কোনো ছবি নয়, এখন তিনি কাজ করবেন এই পিতৃতান্ত্রিক মানসিকতার বিরুদ্ধে। একজন ধর্ষককে ফাঁসি দিলেই অবস্থার পরিবর্তন হবে না, যদি নারীর প্রতি পুরুষের পিতৃতান্ত্রিক মানসিকতা পরিবর্তিত না হয়। এ জন্য তিনিসহ বিভিন্ন দেশের ২০ জন মিলে এমন একটি পাঠক্রম তৈরি করবেন, যেখানে ‘সাম্য অধ্যয়ন’ নামে একটি কোর্স থাকবে। লেসলি মনে করেন, অন্তত ২০টি দেশের একটি প্রজন্ম এ শিক্ষা পাওয়া শুরু করলে অবস্থার কিছু উন্নতি হতে পারে।
এসব অপরাধের সবকিছুর সঙ্গেই আছে ‘ক্ষমতা’র সম্পর্ক। অপর একটি অধিবেশনে মত এল, ক্রিকেট খেলাতেও আছে ক্ষমতা প্রদর্শনের ব্যাপার। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার হিথ স্ট্রিকের সঙ্গে এক আলাপচারিতায় ইতিহাসবিদ রামাচন্দ্র গুহ বলেন, ভারত আজ ক্রিকেট দুনিয়ায় যে মোড়লিপনা দেখাচ্ছে, সেটি এর আগে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াও দেখিয়েছিল। ক্রিকেট বোর্ডে স্বচ্ছতার অভাব রয়েছে। ক্ষমতাবলেই বিশ্বকাপে বিভিন্ন দেশের অংশগ্রহণকে সীমিত করা হয়েছে, এটি দুঃখজনক। নতুন নতুন দেশের দলকেও সুযোগ দেওয়া উচিত।
আরেকটি সেশনে ভারতীয় প্রখ্যাত সাহিত্যিক নয়নতারা সেহগাল বললেন, ভিন্নমত নিয়েই চলতে হবে। ভারতজুড়ে চলমান ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, বহু ধর্ম ও সংস্কৃতির মেলবন্ধনেই ভারত গড়ে উঠেছে। বর্তমান মোদি সরকার ভারতের মূল জায়গায় আঘাত করেছে, এটিকে একটি ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ বানাতে চাইছে। এর বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন পেশার মানুষ সোচ্চার হয়েছেন। এমনকি ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কেও এ ব্যাপারে বলতে হয়েছে।
বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ঢাকা লিট ফেস্টের তিন দিনের বিভিন্ন অধিবেশনেই ঘুরেফিরে এল মানুষের সর্বজনীন অধিকারের কথা। এসেছে নারী, পুরুষ, আদিবাসী-নির্বিশেষে সব মানুষের ভালো থাকার কথা। কীভাবে সাহিত্যের সঙ্গে এগুলো জড়িত, সেটাও ব্যাখ্যা করা হয়েছে এসব অধিবেশনে।
গতকালের একটি অধিবেশনে উৎসবের অন্যতম পরিচালক সাদাফ সায্ সিদ্দিকী আলাপ করেন ১৯৮৯ সালের নোবেল বিজয়ী হ্যারল্ড ভারমাসের সঙ্গে। অন্য একটি অধিবেশনে ইমদাদুল হক মিলনের সঞ্চালনায় সাহিত্যের সর্বজনীনতা নিয়ে রীতিমতো বিতর্কে বসেন কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, আন্দালিব রাশদী, পৌলমী সেনগুপ্ত ও আতা সরকার। আরেকটি অধিবেশনে কবিতা আবৃত্তি করেন নির্মলেন্দু গুণ, কামাল চৌধুরী, সাজ্জাদ শরিফদের মতো কবিরা। ভারতের অনুবাদক চিন্ময় গুহ ফরাসি দেশের কবিদের কয়েকটি কবিতা আবৃত্তি করে শোনান। এ অধিবেশনে কবি মুহাম্মদ নূরুল হুদা আবৃত্তি করেন এমন একটি কবিতা, যেটি গতকালের অন্য সব অধিবেশনের কথাগুলোর প্রতিনিধিত্ব করে। কবিতাটিতে আছে সে সীমানার কথা, যার ফলে কারও দৃষ্টিতে অন্য কেউ হয়ে ওঠে ‘অপর’। বলে দুনিয়াজোড়া সহিংসতা, যুদ্ধ ও হানাহানির পেছনের কথা। কবিতাটি হলো, ‘সীমানা আছে,/ সীমানা ছিল—/ সীমানাগুলো কোথায়?/ সীমানাগুলো মাথায়।’

default image

আইনি সহায়তার বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির তাগিদ

মুক্ত ফুটপাত, নির্বিঘ্ন চলাচল, সহনীয় যানজট

মুক্ত ফুটপাত, নির্বিঘ্ন চলাচল, সহনীয় যানজট

default image

সময় কমেছে, চাঁদার পরিমাণ কমেনি

তেজগাঁও ট্রাকস্ট্যান্ড সড়কে আবার ট্রাক কাভার্ড ভ্যান!

তেজগাঁও ট্রাকস্ট্যান্ড সড়কে আবার ট্রাক কাভার্ড ভ্যান!

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

default image

ঢাকায় সরকারি গণপরিবহন ব্যবস্থা চালুর প্রস্তাব

ঢাকার গণপরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ব্যক্তিমালিকানার পরিবর্তে...
default image

ট্যানারি শ্রমিকদের দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান সিপিবির

চাকরির ধারাবাহিকতা রক্ষা ও নিয়মিত মজুরি দেওয়াসহ হাজারীবাগের বন্ধ হয়ে যাওয়া...
জলাবদ্ধতা নিরসনে ব্যর্থ ঢাকা ওয়াসা

বললেন মেয়র সাঈদ খোকন জলাবদ্ধতা নিরসনে ব্যর্থ ঢাকা ওয়াসা

জলাবদ্ধতা নিরসনে ঢাকা ওয়াসা একটি ব্যর্থ সংস্থা বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ...
default image

গল্প–কাব্যের বৃষ্টি এই শহরে বড় বিস্বাদ

বৃষ্টি এখন আর উপভোগ করতে পারে না এই শহরের বাসিন্দারা। গল্প-কাব্যের বৃষ্টির...
মৃধাসহ তিনজনের ৪ বছর জেল

রেলে নিয়োগে দুর্নীতি মৃধাসহ তিনজনের ৪ বছর জেল

রেলে নিয়োগে দুর্নীতির দুই মামলায় রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সাবেক মহাব্যবস্থাপক...
অভিযানের মধ্যে থেমে থেমে গুলি

অভিযানের মধ্যে থেমে থেমে গুলি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়িতে আজ...
কেন আসছে না পাকিস্তান?

কেন আসছে না পাকিস্তান?

পাকিস্তানের মাটিতে একটি টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতায় খেলার আমন্ত্রণ ছিল...
উত্তর কোরিয়াকে বশে আনতে যুক্তরাষ্ট্রের নয়া চাল

উত্তর কোরিয়াকে বশে আনতে যুক্তরাষ্ট্রের নয়া চাল

উত্তর কোরিয়ায় আরও কঠিন অবরোধ আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। লক্ষ্য পরমাণু...
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info