সব

মিয়ানমারের কমিশনের আরও দুটি রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার ও টেকনাফ প্রতিনিধি
প্রিন্ট সংস্করণ

মিয়ানমারের তদন্ত কমিশনের সদস্যরা গতকাল সোমবার কক্সবাজারের টেকনাফের লেদা ও উখিয়ার বালুখালী অনিবন্ধিত রোহিঙ্গাশিবির পরিদর্শন করেছেন। তাঁরা সেখানে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন।
বেলা দেড়টার দিকে মিয়ানমারের তদন্ত কমিশনের সচিব জ্য মিন্ট পের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের প্রতিনিধিদল লেদা অনিবন্ধিত রোহিঙ্গাশিবিরে পৌঁছায়। সেখানে তাদের স্বাগত জানান আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) কর্মকর্তারা। এরপর তারা রোহিঙ্গাশিবির পরিদর্শন করে। পরিদর্শন শেষে কমিশনের সদস্যরা আইওএম কার্যালয়ে ১০ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের সঙ্গে কথা বলেন।
জ্য মিন্ট পে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা কেন এখানে (বাংলাদেশ) এসেছেন?’ জবাবে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের খেয়ারিপ্রাং গ্রাম থেকে তিন মাস আগে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা আছিয়া খাতুন বলেন, ‘সেখানকার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের গুলি করে ও গলা কেটে হত্যা করেছে। ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে। মেয়েদের ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। তাই প্রাণে বাঁচতে দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছি।’ আরেক রোহিঙ্গা নারী বলেন, সেনাবাহিনীর সদস্যরা বাড়িতে ঢুকে তাঁর স্বামী নুরুল আলমকে ধরে নিয়ে গেছে; এখন পর্যন্ত খবর নেই। তাঁর গ্রামের শত শত পুরুষকে ধরে নিয়ে গুম করেছে সেনারা।
ওই নারীকে থামিয়ে দিয়ে কমিশনের এক সদস্য বলেন, ‘নির্যাতনের ঘটনা বাড়িয়ে বলার দরকার নেই, যা হয়েছে তা-ই বলুন।’
রোহিঙ্গা নেতা আবদুল মতলব বলেন, নাগরিকত্ব ও শান্তিতে বসবাসের নিশ্চয়তা পেলে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাবে।
পরে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশে জ্য মিন্ট পে বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়টি দীর্ঘদিনের সমস্যা। এই সমস্যার সমাধান হলে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত নেওয়া হবে।’
তদন্ত কমিশনের অন্য সদস্যরা হলেন অ্যং তুন থেট, থুন মিনথ, নায়েট সোয়ে, থেথ জিন, কায়েন নেগাই, নায়ান থুন, অ্যং মিনথ, মংছিং থোয়াই, শাদুল্লাহ শাহ ও মায়েন্ট হ্লাইন।
এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) চাইলাউ মারমা, টেকনাফ মডেল থানার পরিদর্শক মো. শফিউল আজম প্রমুখ।
লেদা শিবিরে অবস্থান করছে প্রায় ৮০ হাজার রোহিঙ্গা। এর মধ্যে অন্তত ৪০ হাজার সদ্য পালিয়ে আসা।

ভাঙা হচ্ছে ৩৮টি হোটেল?

ভাঙা হচ্ছে ৩৮টি হোটেল?

default image

ম্যালেরিয়ায় ঝুঁকিমুক্ত হচ্ছে কক্সবাজার

default image

চকরিয়ায় গণপিটুনি ও গুলিতে নিহত ১, অস্ত্র উদ্ধার

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

default image

টেকনাফের ২৫ হাজার গ্রাহকের ভোগান্তি আকাশে মেঘ জমলেই চলে যায় বিদ্যুৎ!

কক্সবাজারের টেকনাফে আকাশে মেঘ জমলেই চলে যায় বিদ্যুৎ। যতক্ষণ মেঘ-বৃষ্টি থাকে,...
default image

চকরিয়ায় ডাকাতদের বিরুদ্ধে অভিযান চারটি বন্দুকসহ গ্রেপ্তার ছয়জন

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার চকরিয়া-লামা-আলীকদম সড়কের কুমারী সেতু এলাকায় অভিযান...
default image

টেকনাফে ইয়াবা পাচারকারীদের সঙ্গে বিজিবির গোলাগুলি

কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক দুটি অভিযানে সাড়ে ছয় লাখ ইয়াবা বড়ি জব্দ করেছে বর্ডার...
default image

সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক, ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান...
১১ মে পবিত্র শবে বরাত

১১ মে পবিত্র শবে বরাত

আগামী ১১ মে (বৃহস্পতিবার) দিবাগত রাতে সারা দেশে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত...
একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু ৯ মে

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু ৯ মে

আগামী ৯ মে অনলাইনে শুরু হচ্ছে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির...
তিস্তার জল দিতে পারব না বাংলাদেশকে

তিস্তার জল দিতে পারব না বাংলাদেশকে

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিস্তার পানি বণ্টনের ক্ষেত্রে...
এক নারীকে স্ত্রী দাবি দুই ব্যক্তির!

এক নারীকে স্ত্রী দাবি দুই ব্যক্তির!

পটুয়াখালীর বাউফলে এক নারীকে (২২) দুই ব্যক্তি স্ত্রী হিসেবে দাবি করছেন। এ নিয়ে...
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info