সব

গাড়িচালক ও বাসার তত্ত্বাবধায়ক আটক

সাবেক সাংসদ কর্নেল কাদের খান ‘নজরবন্দী’!

বগুড়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট সংস্করণ

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের জাতীয় পার্টির (জাপা) সাবেক সাংসদ কর্নেল (অব.) আবদুল কাদের খানকে বগুড়া শহরের রহমান নগরের নিজ বাসায় ‘নজরবন্দী’ করে রাখা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার ভোর থেকে বগুড়া শহরের কাদের খানের মালিকানাধীন ‘গরীব শাহ ক্লিনিক’ ঘিরে রেখেছেন পোশাকধারী ও গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা। চারতলা ভবনের এই ক্লিনিকের ওপরতলায় পরিবার নিয়ে থাকেন আবদুল কাদের খান। গাইবান্ধা-১ শূন্য আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য কর্নেল কাদের খান ইতিমধ্যে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

পুলিশের একাধিক সূত্র আভাস দিয়েছে, সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত গাইবান্ধা-১ আসনের আওয়ামী লীগ-দলীয় সাংসদ মনজুরুল ইসলাম হত্যা মামলায় কাদের খানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যেকোনো সময় আটক করা হতে পারে।

ইতিমধ্যে সাংসদ মনজুরুল হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত বৃহস্পতিবার কর্নেল কাদের খানের গাড়িচালক আবদুল হান্নান এবং সুন্দরগঞ্জের বাসার তত্ত্বাবধায়ক শামিম হোসেনকে আটক করেছে গাইবান্ধা জেলা পুলিশ। এ সময় কাদের খানের মুঠোফোনও জব্দ করা হয়।

আবদুল কাদের খান তাঁর গাড়িচালক এবং বাসার তত্ত্বাবধায়ককে আটক ও তাঁর মুঠোফোন পুলিশের হেফাজতে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল শুক্রবার বেলা দুইটার দিকে সরেজমিনে দেখা গেছে, বগুড়া শহরের রহমান নগর এলাকায় সাবেক সাংসদ কর্নেল কাদের খানের বাসার সামনে-পেছনে পুলিশের পোশাকধারী এবং সাদাপোশাকের বিপুলসংখ্যক সদস্য অবস্থান নিয়েছেন। ক্লিনিকের ভেতরেও পুলিশের চারজন সদস্য।

গরীব শাহ ক্লিনিকের ব্যবস্থাপক মো. সুমন প্রথম আলোকে বলেন, ‘চারতলা ভবনের ওপরতলায় স্যার (কর্নেল কাদের খান) পরিবার নিয়ে থাকেন। তিনতলা পর্যন্ত ক্লিনিক। স্যার এবং তাঁর স্ত্রী দুজনই চিকিৎসক। তাঁরা নিজেরাও এখানে রোগী দেখেন।’

তিনি বলেন, ক্লিনিক ঘিরে রেখেছে পুলিশ। ক্লিনিকের ভেতরে-বাইরে তারা অবস্থান নিয়েছে। তবে ক্লিনিকে আসা-যাওয়ায় কাউকে বাধা দেয়নি পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় কর্নেল কাদের খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘সকাল থেকে পুলিশ ও গোয়েন্দারা আমার বাসার ভেতরে-বাইরে অবস্থান নিয়েছে। গোয়েন্দা পুলিশের দুজন কর্মকর্তা আমাকে জানিয়েছেন, “নজরবন্দী” নয়, উপনির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার কারণে আমার ওপর জঙ্গি হামলা হতে পারে—পুলিশের কাছে এমন তথ্য রয়েছে। নিরাপত্তার জন্যই বাসার সামনে পুলিশ বসানো হয়েছে। বাসার বাইরে যেতে কোনো নিষেধ করা হয়নি, তবে কোথাও গেলে অবশ্যই পুলিশকে জানাতে বলা হয়েছে।’

সাবেক সাংসদের ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, শুধু বগুড়ার বাসাতেই নয়; গত বুধবার থেকে সুন্দরগঞ্জের বাসাতেও গোয়েন্দা নজরদারি করছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে সেখানকার পুলিশ তাঁকে (কাদের খান) গাড়িতে তুলে নেয়। এরপর কয়েক ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মুঠোফোন রেখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হলেও গাড়িচালক হান্নান এবং বাসার তত্ত্বাবধায়ক শামিমকে আটক করা হয়।

অবশ্য বগুড়ার পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান প্রথম আলোর কাছে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, এ সম্পর্কে তিনি মোটেও অবগত নন। তাঁর অধীন কোনো পুলিশ বা গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যও সেখানে যায়নি বলেও তিনি দাবি করেন।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদ হোসেন দাবি করেন, নিরাপত্তার জন্য সাবেক সাংসদ কর্নেল কাদের খানের বাসাসহ ওই এলাকা গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

কী কারণে হঠাৎ এমন গোয়েন্দা নজরদারির প্রয়োজন পড়ল জানতে চাইলে ওসি বলেন, ওই এলাকায় জঙ্গি হামলা হতে পারে—এমন আশঙ্কা থেকেই সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার জন্য সেখানে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে।

 মুঠোফোনে জানতে চাইলে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আতিয়ার রহমান এ সম্পর্কে কিছুই জানেন না বলে জানান। তিনি সাংসদের গাড়িচালক ও তত্ত্বাবধায়ককে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, ওই গাড়িচালক ও তত্ত্বাবধায়ককে সাংসদ হত্যা মামলায় আটক করা হলে তাঁর জানার কথা।  

জঙ্গি হামলায় নিহত ফায়ারম্যান মতিনের পরিবারকে সহায়তা

জঙ্গি হামলায় নিহত ফায়ারম্যান মতিনের পরিবারকে সহায়তা

default image

গাংনীতে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

default image

মাটি খুঁড়ে আবারও ফেনসিডিল উদ্ধার

default image

গণবিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

ইংরেজি মাধ্যমে সেশন ফির নামে অর্থ আদায় বেআইনি

ইংরেজি মাধ্যমে সেশন ফির নামে অর্থ আদায় বেআইনি

দেশের ইংরেজি মাধ্যমের কোনো শিক্ষার্থী এক শ্রেণি থেকে অন্য শ্রেণিতে উত্তীর্ণ...
বাংলাদেশ ১৪ মিনিট আগে
গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশসহ নিহত ৬

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশসহ নিহত ৬

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শকসহ (এএসআই) ছয়জন নিহত...
বাংলাদেশ ১ ঘন্টা ৩০ মিনিট আগে
চীনা বিশ্বায়নে ভারসাম্যের চ্যালেঞ্জে বাংলাদেশ

চীনের ‘বেল্ট অ্যান্ড রোড’: বাংলাদেশের উন্নয়নের সন্ধিক্ষণ ২ চীনা বিশ্বায়নে ভারসাম্যের চ্যালেঞ্জে বাংলাদেশ

বেল্ট অ্যান্ড রোড (বিআরআই) ফোরামের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়া ২৯ জন...
মতামত ৩ ঘন্টা ২৫ মিনিট আগে মন্ত্যব্য
‘ভারতের মতো অত প্রতিভা নেই বাংলাদেশে’

‘ভারতের মতো অত প্রতিভা নেই বাংলাদেশে’

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম পর্ব শুরু হচ্ছে আগামী ৪ নভেম্বর,...
খেলা ১ ঘন্টা ৩৮ মিনিট আগে
বাবার জন্য ছেলের ত্যাগ স্বীকার

বাবার জন্য ছেলের ত্যাগ স্বীকার

বাবার মুখ্যমন্ত্রিত্ব বজায় রাখতে ছেলে ইস্তফা দিলেন বিধায়ক পদ থেকে। সঙ্গে...
আন্তর্জাতিক ৪৬ মিনিট আগে
বনানীর ধর্ষণ মামলার আসামি নাঈম আদালতে

বনানীর ধর্ষণ মামলার আসামি নাঈম আদালতে

রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামি আবদুল...
বাংলাদেশ ৩ ঘন্টা ৭ মিনিট আগে
বন ছেড়ে হাতি রাস্তায়, খেলল ফুটবল

বন ছেড়ে হাতি রাস্তায়, খেলল ফুটবল

ঘটনাটা ভারতের আসামের এক ব্যস্ত রাস্তার। নিয়মিত সেখান দিয়ে চলে অনেক গাড়ি। তবে...
আন্তর্জাতিক ২০ মিনিট আগে
সাকিবকে নিয়ে দুশ্চিন্তা নেই মাশরাফির

সাকিবকে নিয়ে দুশ্চিন্তা নেই মাশরাফির

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজটা খুব ভালো যায়নি সাকিব আল হাসানের। ব্যাট হাতে...
খেলা ৩ ঘন্টা ১২ মিনিট আগে মন্ত্যব্য
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info