সব

নাসিরনগর হামলা

‘ফেসবুকে ছবি পোস্ট করা ব্যক্তির নাম বললেন আশুতোষ’

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

গত বছরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর-মন্দিরে হামলার ঘটনায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন রসরাজের বিরুদ্ধে মামলার অন্যতম প্রধান সাক্ষী আশুতোষ দাস। ১৬৪ ধারায় দেওয়া এ জবানবন্দিতে তিনি ফেসবুকে ধর্ম অবমাননাকর ছবি পোস্ট করা ব্যক্তির নাম বলেছেন বলে জানায় পুলিশ। 

আজ বুধবার সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম শফিকুল ইসলামের আদালতে আশুতোষের জবানবন্দি নেওয়া হয়।
পুলিশ বলেছে, গত বছরের ২৮ অক্টোবর হরিপুর ইউনিয়নের হরিণবেড় গ্রামের রসরাজ দাসের ফেসবুক থেকে ওই ছবি পোস্ট করা হয়। বিদেশ থেকে একজনের ফোন পেয়ে পরের দিন সকালে মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে ও শান্ত থাকার অনুরোধ জানিয়ে ওই ফেসবুক আইডি থেকেই একটি লেখা ছাড়েন আশুতোষ।
ছবি পোস্ট করাকে কেন্দ্র করে নাসিরনগরে হামলার ঘটনার শুরু থেকেই অভিযোগ ওঠে, রসরাজের ফেসবুক আইডি ও পাসওয়ার্ড জানতেন আশুতোষ।

আদালতে হাজির করানোর আগের দিন মঙ্গলবার সকালে আশুতোষকে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে বাবা অনুকূল দাসের জিম্মায় হস্তান্তর করে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজ উদ্দিন বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আশুতোষ পুলিশকে অনেক তথ্য দিয়েছেন। ২৮ অক্টোবর রাতে হরিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু লালের ছেলে ওমান প্রবাসী মো. মামুন ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্টের বিষয়ে দুর্গাপুরের হেমেন্দ্র দাস মাস্টারের ছেলে বিপুল দাসকে অবগত করেন। একই সঙ্গে আশুতোষকেও জানান তিনি। মামুন তাঁদের রসরাজের আইডি থেকে পোস্টটি মুছে ফেলতে বলেন। একসময় রসরাজের সঙ্গে আশুতোষ মুঠোফোনে কথা বলেন। রসরাজ বলেন, ফেসবুকের পোস্ট প্রসঙ্গে তিনি কিছুই জানেন না।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, রসরাজের চাচাতো ভাই হৃদয় ও ছোট ভাই পলাশের মাধ্যমে আশুতোষ তাঁর ফেসবুক আইডি ও পাসওয়ার্ড জানেন বলে জানিয়েছেন। ফেসবুকে ছবি কে পোস্ট করেছেন, তা-ও তিনি জানেন বলে জানিয়েছেন।

আশুতোষের বাবা অনুকূল দাস আজ সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার ছেলে ফেসবুকে এই পোস্ট দেয়নি। এ সম্পর্কে আমাদের কাছে প্রমাণও আছে।’

গত ৩০ অক্টোবর রাতে নাসিরনগরের রসরাজ দাস নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক থেকে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্ট নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটে। নাসিরনগর সদর থেকে ১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে হরিণবেড়ে রসরাজদের বাড়িও ভাঙচুর করা হয়। এরপর আরও চার দফায় হিন্দুদের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এসব ঘটনায় আটটি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ১০৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

চার বছর ধরে চলছে খোঁড়াখুঁড়ি

চার বছর ধরে চলছে খোঁড়াখুঁড়ি

ওসির যোগসাজশে বাড়ি দখলের অভিযোগ

ওসির যোগসাজশে বাড়ি দখলের অভিযোগ

‘ঝিলপাড়ে শিশুপার্ক, লেক ও ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হবে’

‘ঝিলপাড়ে শিশুপার্ক, লেক ও ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হবে’

মিরপুর ও পুরান ঢাকায় পানিতে দুর্গন্ধ

মিরপুর ও পুরান ঢাকায় পানিতে দুর্গন্ধ

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আবাসিক এলাকার ভেতরে লেগুনাস্ট্যান্ড

মিরপুর ১০ নম্বর সেকশনের বি ব্লকের ২ নম্বর সড়ক আবাসিক এলাকার ভেতরে লেগুনাস্ট্যান্ড

মিরপুর ১০ নম্বর সেকশনের বি ব্লকে আবাসিক এলাকার ভেতরে গড়ে তোলা হয়েছে...
ছিল গণপরিবহন, হয়েছে বিনোদনের বাহন

হাতিরঝিল ওয়াটার ট্যাক্সি ছিল গণপরিবহন, হয়েছে বিনোদনের বাহন

হাতিরঝিলের ওয়াটার ট্যাক্সিতে এখন নিত্য পারাপারের চেয়ে বিনোদনই প্রাধান্য...
default image

বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১০ জনের দণ্ড

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে দালালের ভূমিকা পালন করার...
default image

উত্তরায় মাঠ ও পার্কের জায়গায় ক্লাব, আবাসিক প্লট

ভূমির শ্রেণি পরিবর্তন করে উত্তরার চারটি সেক্টরে খেলার মাঠ ও পার্কের জন্য...
রূপরেখা চূড়ান্ত

বাংলাদেশ–ভারত প্রতিরক্ষা সহযোগিতা রূপরেখা চূড়ান্ত

প্রতিরক্ষা সহযোগিতাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে বাংলাদেশ ও ভারত পাঁচ বছর মেয়াদি...
ব্রিটিশ পার্লামেন্টে অধিবেশন চলাকালে সন্ত্রাসী হামলা

এক পুলিশ সদস্যসহ নিহত ৪ :ব্রিটিশ পার্লামেন্টে হামলা ব্রিটিশ পার্লামেন্টে অধিবেশন চলাকালে সন্ত্রাসী হামলা

যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের বাইরে গতকাল বুধবার সন্ত্রাসী হামলায় পুলিশ...
মুহিতের সামনেই মিসবাহর ইচ্ছা!

মুহিতের সামনেই মিসবাহর ইচ্ছা!

‘আমি জীবনেও জনপ্রতিনিধি হতে পারিনি। যেহেতু আমাদের সুযোগ্য অর্থমন্ত্রী...
ভুট্টোর চোখে শেখ মুজিব

মার্চ ১৯৭১ ভুট্টোর চোখে শেখ মুজিব

একাত্তরের মার্চে আমাদের এই অঞ্চলে বিরাট একটা পরিবর্তন ঘটে গেল। তাসের ঘরের...
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info