সব

পাখিদের হাসপাতাল

অনলাইন ডেস্ক

চ্যারিটি বার্ডস হাসপাতালে অসুস্থ টিয়া পাখিকে চিকিৎসা দিচ্ছেন ধীরাজ কুমার সিং। ছবি: এএফপিদিল্লির লাল দুর্গের কাছে ছোট একটি হাসপাতাল। এখানকার রোগী পাখিরা। আহত বা অসুস্থ পাখিদের চিকিৎসা দেওয়া হয় এই হাসপাতালে।

চ্যারিটি বার্ডস হসপিটালটি তিনতলার। জৈনধর্মের অনুসারীরা এটি পরিচালনা করেন। জৈনমন্দিরের কাছেই হাসপাতালটির অবস্থান। ৪ হাজারেরও বেশি পাখিকে চিকিৎসা দেওয়া হয় এখানে। পাখা ভাঙলে, পা ভাঙলে, চোখে সংক্রমণ বা পেটের সমস্যা হলে পাখিরা হাসপাতালে চিকিৎসা পায়।

ভারতের প্রাচীন ধর্ম জৈন। এই ধর্মে সৃষ্টির ছোট-বড় সব জীবকে ভালোবাসতে বলা হয়। হিংস্রতা এই ধর্মে নিষিদ্ধ। এই ধর্মের অনুসারীদের বিশ্বাস, সব জীব একে অন্যের ওপর নির্ভরশীল। তাই একে অন্যকে সাহায্য করাই তাদের ধর্ম।

ব্যান্ডেজ বেঁধে দেওয়া হয়েছে অসুস্থ একটি পাখিকে। ছবি: এএফপিজৈনধর্মাবলম্বীরা নিরামিষাশী। কিছু ভিক্ষু ও নানরা কাপড় দিয়ে মুখ ঢেকে রাখেন। কোনো পোকামাকড় নিশ্বাসের সঙ্গে যাতে মারা না যায় সে জন্যই এমন ব্যবস্থা।

হাসপাতালে পশুপাখি-বিষয়ক চিকিৎসক ধীরাজ কুমার সিং এএফপিকে বলেন, সরকারি, বেসরকারি বা ব্যক্তিমালিকানাধীন অনেক চিকিৎসাকেন্দ্রে কুকুর, বিড়ালদের চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিন্তু পাখিদের জন্য হাসপাতাল পাওয়া যায় না।

১৯৫৭ সালে হাসপাতালটি নির্মাণ করা হয়। জৈন সম্প্রদায় ও পর্যটকদের আর্থিক সহযোগিতায় হাসপাতালটি পরিচালিত হয়।

রিকশা, মোটরবাইক, বাইসাইকেল, গাড়ি ও ট্রাকের শব্দ দিল্লির পাখিদের জন্য খুবই বিপজ্জনক। কুকুর ও বিড়ালের ডাকও তাদের ক্ষতি করে। প্রতিদিন ৩০ থেকে ৪০টি আহত বা অসুস্থ পাখিকে শুভানুধ্যায়ীরা হাসপাতালে নিয়ে আসে।

হাসপাতালে খাঁচায় রেখে চিকিৎসা চলছে পাখির। ছবি: এএফপিধীরাজ সিং বলেন, সকালে হাঁটতে গিয়ে অনেকে পার্কে বা রাস্তায় অসুস্থ পাখি পড়ে থাকতে দেখে। এরপর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ধীরাজ সিংয়ের সঙ্গে কথা বলতে বলতেই রক্তাক্ত একটি চিল হাতে ঢুকলেন মনীশ নামে এক যুবক। জানালেন, চিলটি খাবারের খোঁজে রাস্তায় নেমেছিল। সুতায় লেগে চিলটি আহত হয়। রক্ত পড়তে থাকে।

ডানায় বেঁধে যাওয়া সুতা খুলে চিলটির ক্ষত পরিষ্কার করে ব্যান্ডেজ বেঁধে দিলেন চিকিৎসক। এরপর একটি খাঁচায় চিলটিকে রাখা হয়।

এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পাখিদের খাদ্যাভ্যাস বদলাতে হয়। পাখিরা সাধারণত কীটপতঙ্গ বা ছোট স্তন্যপায়ী প্রাণী খায়। হাসপাতালে থাকলে পাখিদের খেতে হয় পনিরের টুকরো।

সুস্থ হওয়ার পর চিলটিকে হাসপাতালের ছাদে নেওয়া হয়। ডানা মেলে চিলটি উড়ে যায় দূর আকাশে।

default image

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর গেলেন মির্জা ফখরুল

default image

স্বামীর লুকোচুরিতে বিপন্ন স্ত্রী ও দুই মেয়ের জীবন

default image

গণতন্ত্রের ঘাটতির কারণে জঙ্গিবাদের উত্থান: খসরু

চৈত্রদিনের বিলিম্বি

চৈত্রদিনের বিলিম্বি

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

default image

চলচ্চিত্র অভিনেতা মিজু আহমেদ আর নেই

বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের জ্যেষ্ঠ অভিনেতা মিজু আহমেদ (৬৪) আর নেই। গতকাল সোমবার...
default image

বিদেশি গণমাধ্যমে বাংলাদেশ কলকাতার সংবাদপত্রে সিলেট অভিযান

সিলেটে জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের খবরটি গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করেছে ভারতের...
default image

কোকেনসহ গ্রেপ্তার

হংকংয়ে কোকেনসহ দুই বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে হংকং পুলিশ। গত শুক্রবার...
default image

নাট্যোৎসবে রওনক জাহান গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায় কঠিন কিছু নয়

রাষ্ট্রবিজ্ঞানী রওনক জাহান বলেছেন, ২৫ মার্চের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি...
আতিয়া মহল থেকে উদ্ধার লাশের ডিএনএ সংগ্রহ

আতিয়া মহল থেকে উদ্ধার লাশের ডিএনএ সংগ্রহ

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকার আতিয়া মহলের নিচতলা থেকে সেনাবাহিনীর...
সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে চায় তুরস্ক

প্রধানমন্ত্রীকে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রীর ফোন সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে চায় তুরস্ক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করে সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ...
বাসে নারী আসনে বসলে জেল-জরিমানা

বাসে নারী আসনে বসলে জেল-জরিমানা

বাসে নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য সংরক্ষিত আসনে কেউ বসলে বা তাদের...
কৌতূহলই কাল হলো তাঁদের video

কৌতূহলই কাল হলো তাঁদের

গত শনিবার সিলেটে জঙ্গি আস্তানার পাশে বোমা হামলায় পুলিশের দুই কর্মকর্তাসহ ছয়জন...
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info