সব

ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে ডাকঘরের কার্যক্রম

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি
প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া ডাকঘরের ছাদের পলেস্তারা খসে রড বেরিয়ে গেছে। সম্প্রতি তোলা ছবি l প্রথম আলোভেজা স্যাঁতসেঁতে ছাদ। পলেস্তারা খসে ছাদের রড বেরিয়ে গেছে। দেয়ালেও বড় বড় ফাটল। এই চিত্র বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা ডাকঘরের। এর মধ্যেই ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
সরেজমিনে গত বৃহস্পতিবার দেখা যায়, ডাকঘরের পলেস্তারা খসে ছাদের কয়েকটি স্থানে ঢালাইয়ের রড বের হয়ে গেছে। ছাদের বিমে ফাটল ধরেছে। সিলিং ফ্যানের হুকগুলোয় মরিচা ধরেছে। গত বছর হুক খুলে একটি সিলিং ফ্যান খুলে নিচে পড়ে যায়। তবে ওই দুর্ঘটনায় কেউ আহত হননি। এরপর সব ফ্যান খুলে রাখা হয়। কর্মকর্তারা এখন টেবিল ফ্যান ব্যবহার করেন। কার্যালয়টির দেয়ালেও বড় বড় ফাটল ধরেছে। ভবনের মেঝের ঢালাই উঠে গিয়ে তা দেবে গেছে। বর্ষার সময় কার্যালয়ের কাগজপত্র সব সময় পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা হয়। বৈদেশিক ও ই-মোবাইলে টাকা লেনদেনের জন্য সম্প্রতি ডাক বিভাগ কম্পিউটার দিয়েছে এ কার্যালয়ে। সেটিও পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে। তিন কক্ষের এ জরাজীর্ণ ডাকঘরটিতে কার্যক্রম চালানো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। কার্যালয়ের পাশে পোস্টমাস্টারের আবাসিক ভবন। ওই ভবনটিরও একই অবস্থা।
গত বৃহস্পতিবার ডাকঘরে সঞ্চয় হিসাবের টাকা নিতে আসেন অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক রণজিৎ সাহা। তিনি বলেন, প্রতি মাসে একবার পোস্ট অফিসে আসতে হয়। ভবনের ভেতরে বেশিক্ষণ থাকলে বুকের ভেতর ধড়ফড় করে। খানিক পরপর ছাদ থেকে বালু ঝুরঝুর করে মাথায় পড়ে। দেয়ালের ফাটল দিয়ে বাইরে থেকে অনায়াসে সাপ ঢুকে পড়তে পারে।
জোগারপাড়ার আবদুল কুদ্দুস বলেন, ‘বেশি লাভের আশায় ব্যাংকে টাকা না রেখে পোস্ট অফিসে রেখেছি। অনেক দিন ধরে পোস্ট অফিসের এ অবস্থা। দেখে মনে হয় পোস্ট অফিসের কর্মকর্তারা নাকে তেল দিয়ে ঘুমাচ্ছেন। দুর্ঘটনায় গ্রাহক মারা গেলে তাঁদেরই বা কী!’
কর্মরত পোস্টমাস্টার আহম্মদ আলী বলেন, তিনি আড়াই বছর ধরে এ কার্যালয়ে দায়িত্ব পালন করছেন। চিঠিপত্রের কাজের চেয়ে এখানে টাকা লেনদেনের ভিড় বেশি। এ কার্যালয়টি প্রায় দেড় যুগ আগে নির্মাণ করা হয়। চাকরি করেন বলে সবকিছু মেনে নিতে হচ্ছে। কোনো সুস্থ মানুষ এসব ভবনে থাকবেন না। তিনি একাধিকবার ভবনের এ দুর্দশা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন। কিন্তু কোনো ফল মেলেনি।
বগুড়া প্রধান ডাকঘরের তত্ত্বাবধায়ক (সুপারিনটেনডেন্ট) আফজাল হোসেন মুঠোফোনে বলেন, দুপচাঁচিয়া ডাকঘর ভবনের অবস্থা রাজশাহী প্রধান ডাকঘরের ভবন নির্মাণ বিভাগে জানানো হয়েছে। বরাদ্দ এলেই সংস্কারের কাজ করা হবে।

সেতু নেই, বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার মানুষের

সেতু নেই, বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার মানুষের

default image

আমিন জুট মিল শ্রমিকদের রেল ও সড়কপথ অবরোধ

default image

মিথ্যা মামলায় নিরপরাধ লোক যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয়

default image

বন্দরের বহরে নতুন টাগবোট

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

default image

সীতাকুণ্ডে শিব চতুর্দশী মেলা শুরু হচ্ছে আজ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের চন্দ্রনাথ ধামে আজ শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে তিন...
খেতজুড়ে বিদেশি সবজি

খেতজুড়ে বিদেশি সবজি

সবুজ মাঠ পেরিয়ে আঁকাবাঁকা জমির আলপথ ধরে সামনে এগিয়েই চোখধাঁধানো সবজির রাজ্য।...
default image

উখিয়ার কুতুপালং শিবিরে জাতিসংঘের বিশেষ দূত রোহিঙ্গাদের নিয়ে ১৩ মার্চ প্রতিবেদন প্রকাশ

জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ র্যাপোর্টিয়ার ইয়াংঘি লি গতকাল বৃহস্পতিবার...
ছেলেশিশুরও বিয়ে বিশেষ বিধানে?

ছেলেশিশুরও বিয়ে বিশেষ বিধানে?

বাল্যবিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ বিধান শুধু মেয়েদের জন্য নয়, ছেলেদের জন্যও...
default image

দুই প্রশ্নে অস্থিরতা বিএনপিতে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং খালেদা জিয়ার মামলার রায়-পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে...
কারও সন্দেহেই ছিলেন না কাদের

সাংসদ মনজুরুল হত্যা কারও সন্দেহেই ছিলেন না কাদের

সাংসদ মনজুরুল ইসলামকে (লিটন) হত্যার পরিকল্পনাকারী হিসেবে সাবেক সাংসদ আবদুল...
default image

কার্যকর হবে দুই দফায় মার্চ ও জুনে গ্যাসের দাম বাড়ল

সব শ্রেণির গ্রাহকের জন্য গ্যাসের দাম বাড়ল। বর্তমানের চেয়ে গড়ে দাম বাড়ানো...
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info